eibela24.com
মঙ্গলবার, ২৫, সেপ্টেম্বর, ২০১৮
 

 
খুলনাবাসীকে ১০০ প্রকল্প উপহার দিলেন প্রধানমন্ত্রী
আপডেট: ০৫:০৭ pm ০৩-০৩-২০১৮
 
 


শিল্পনগরী ও নৈসর্গিক জনপদ হিসেবে সুপরিচিত খুলনাবাসীকে ১০০টি উন্নয়ন প্রকল্প উপহার দিলেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার বিকেলে খুলনার সার্কিট হাউজ মাঠে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের জনসভায় প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দিয়ে এই উন্নয়ন প্রকল্পগুলোর উদ্ধোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

তার আগে খুলনার খালিশপুরে শনিবার বেলা ১১টায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, বাংলাদেশ (আইইবি)-এর ৫৮তম কনভেনশনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর সার্কিট হাউস মাঠের জনসভায় উন্নয়ন কর্মসূচি উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্ত স্থাপন করেন।

যেসব প্রকল্পের উদ্বোধন করেন শেখ হাসিনা

গল্লামারী-বটিয়াঘাটা-দাকোপ-নলিয়ান ফরেষ্ট সড়ক, রূপসা-শ্রীফলতলা-তেরখাদা সড়ক, কেডিএ খানজাহান আলী সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের একাডেমিক-কাম-প্রশাসনিক ভবন, লায়ন্স স্কুল অ্যান্ড কলেজের একাডেমিক ভবন, চালনা মোবারক মেমোরিয়াল কলেজের একাডেমিক ভবন, খুলনা আইডিয়াল কলেজের একাডেমিক ভবন, শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজের একাডেমিক ভবন, খুলনা ইসলামিয়া ডিগ্রি কলেজের একাডেমিক ভবন, চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত ভবন, মহেশ্বরপাশা সরকারি শিশু পরিবার হোস্টেল ভবন, মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউ ভবন, মেডিকেল কলেজের অডিটরিয়াম ভবন, শহীদ শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতাল ভবন, তেরখাদা থানা ভবন, রূপসা ফায়ার ষ্টেশন ভবন, রূপসা সেনহাটি নদী ফায়ার ষ্টেশন, বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিস, কৃষি বিভাগের অফিস-কাম-ট্রেনিং এন্ড প্রসেসিং সেন্টার ভবন, রূপসা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন, দিঘলিয়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন, তেরখাদা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন, ডুমুরিয়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন, পাইকগাছা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন, পাইকাগাছা আরএন্ডএইচ-বাঁকা জিসি সড়কের কপোতাক্ষ নদের উপর ব্রিজ, খুলনা ডায়াবেটিক হাসপাতালের নতুন ভবন, হাতিয়ার ডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কাম সাইক্লোন সেল্টার ভবন, শিমলার আইট খেজুরডাঙ্গা আরএনজিপিএস কাম সাইক্লোন সেল্টার ভবন, দেয়াড়া পশ্চিমপাড়া আরএন জিপিএস কাম সাইক্লোন সেল্টার ভবন, তেরখাদা আব্দুলের মোড় আরএন্ডএইচ- মাঝিরগাথি জিসি ভায়া কোলা বাজার সড়ক, বটিয়াঘাটা উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্সের সম্প্রসারণ, পাইকগাছা হাবিবনগর মাদরাসার মোড় হতে ডুমুরিয়া মাগুরখালি-কাঁঠালতলা বাজার পর্যন্ত সংযোগ সড়ক, শহীদ মিনার, খুলনা, রেলওয়ে স্টেশন এবং ইয়ার্ড রি-মডেলিং প্রকল্প, খুলনা জেলা স্টেডিয়াম, পাঁচতলা কয়রা আধুনিক ডাকবাংলো ভবন, দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিশুদের জন্য হোস্টেল ভবন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন, পাইকগাছায় কপিলমুনি ইউনিয়ন ভূমি অফিস, কয়রা থানা ভবন, ডুমুরিয়াতে শোভনা ইউনিয়ন ভূমি অফিস, জলমা ইউনিয়ন ভূমি অফিস, আরবান প্রাইমারি হেলথ কেয়ার সার্ভিসেস ডেলিভারি প্রকল্প, বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল (বর্ধিতাংশ), জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল (ঊর্ধ্বমুখী সম্প্রসারণ), শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ ভবন (ঊর্ধ্বমুখী সম্প্রসারণ), মাইকেল মধুসূদন দত্ত অতিথি ভবন (বর্ধিতাংশ), আচার্য প্রফুল্ল চন্দ্র রায় কেন্দ্রীয় গবেষণাগার (বর্ধিতাংশ) ও ওয়াসা ভবন, খুলনা।

যেসব ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন করেন শেখ হাসিনা

খুলনা-চুকনগর-সাতক্ষীরা (খুলনা অংশ) সড়ক, পাইকগাছা কৃষি কলেজ, বটিয়াঘাটা ডিগ্রি কলেজের একাডেমিক ভবন, মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ইমেজিং ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার, মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ‘এ’ ব্লকের ঊর্ধ্বমুখী সম্প্রসারণ। মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নার্সেস ডরমেটরি, মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ষ্টাফ ডরমেটরি। মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বাংকার, খুলনা সদর হাসপাতালকে ১৫০ শয্যা থেকে ২৫০ শয্যায় উন্নীতকরণ, সিভিল সার্জনের অফিস ভবন, শহীদ শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের আবাসিক ভবন, দিঘলিয়া উপজেলা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, পুলিশ সুপারের কার্যালয়, এএসপি ‘ক’ সার্কেল অফিস, দৌলতপুর থানা ভবন, আর্ম পুলিশ ব্যাটালিয়নের অস্ত্রাগার ভবন, পুলিশ প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের একাডেমিক ভবন, পুলিশ প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের ফায়ারিং বার্ট, পুলিশ প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের অস্ত্রাগার ভবন, জেলা রেজিষ্ট্রি অফিস ভবন, রূপসা উপজেলা মডেল মসজিদ, আলিয়া মাদরাসা মডেল মসজিদ, ডুমুরিয়া ভদ্রা নদীর উপর ৩১৫.৩০ মিটার লম্বা পিসিগার্ডার ব্রিজ, বটিয়াঘাটা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপেক্স ভবন, তেরখাদা উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্সের প্রশাসনিক ভবন ও হলরুম, পাইকগাছা উপজেলার হরিঢালী ইউনিয়ন ভূমি অফিস, পাইকগাছা উপজেলার লতা ইউনিয়ন ভূমি অফিস, ফুলতলা উপজেলায় উচ্চ জলাধার ও পাইপ লাইনের মাধ্যমে সুপেয় পানি সরবরাহ, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এক হাজার আসনবিশিষ্ট অডিটরিয়াম কাম মাল্টিপারপাস হল, টেক্সটাইল ইনস্টিটিউট, জেলা কারাগার, জেলা পুলিশ লাইন, ১০তলা বিশিষ্ট বিএসটিআই, আঞ্চলিক অফিস ভবন, আর আর এফ ব্যারাক ভবনের ঊর্ধ্বমুখী সম্প্রসারণ, পাইকগাছা উপজেলা কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, আর আর এফ এর অস্ত্রাগার ভবন, পাইকগাছা সাব-রেজিস্ট্রি অফিস, রূপসা শ্রম কল্যাণ কেন্দ্র পুনঃনির্মাণ ও আধুনিকীকরণ, ওজোপাডিকো লিমিটেডের ১৫তলা বিশিষ্ট প্রধান কার্যালয়, জলাবদ্ধতা নিরসনকল্পে ভদ্রা ও সালতা নদী পুনঃখনন, বিএনএস তিতুমীর সংলগ্ন ভৈরব নদীর তীর সংরক্ষণ, শেখ রাসেল ইকো পার্ক, এ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ কনভেনশন সেন্টার, জয় বাংলা ভবন, ১০ তলা বিশিষ্ট শহীদ বুদ্ধিজীবী ড. মোফাজ্জল হায়দার চৌধুরী আবাসিক ভবন, লালন সাঁই মিলনায়তন ও টিএসসি ভবন, শহীদ বুদ্ধিজীবী ডা. আলীম চৌধুরী চিকিৎসা কেন্দ্র, সুলতানা কামাল জিমনেসিয়াম, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর আইইআর ভবন, আইটি ইনকিউবেশন এন্ড ট্রেনিং সেন্টার ও রূপসা নদীর তলদেশ দিয়ে পাইপ লাইন স্থাপনের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন।

উল্লেখ্য, সর্বশেষ ২০১৩ সালের ২৪ জানুয়ারি খুলনায় জনসভা করেছিলেন শেখ হাসিনা। এছাড়াও তিনি ২০১৫ সালে একবার খুলনায় এসেছিলেন। ওই বছরের ৬ সেপ্টেম্বর খুলনা শিপইয়ার্ডে একটি যুদ্ধজাহাজের নির্মাণকাজ উদ্ধোধন করেন।

নি এম/