eibela24.com
শনিবার, ২২, সেপ্টেম্বর, ২০১৮
 

 
শরণখোলায় কীর্তন চলাকালীন হিন্দু বাড়িতে আগুন দুর্বৃত্তদের
আপডেট: ১১:১১ am ০৫-০৩-২০১৮
 
 


বাগেরহাট জেলার শরণখোলায় হিন্দুদের এক বাড়িতে আগুনে পুড়িয়ে দিয়েছে দুর্বত্তরা। হরিনাম কীর্তন চলাকালে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে আগুন লাগিয়ে হিন্দুদের মাঝে ভীতি সৃস্টি করার উদ্দেশ্যে এ ঘটনা ঘটিয়েছে। 

বুধবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার সাউথখালী ইউনিয়নের উত্তর তাফালবাড়ি গ্রামের গাইনপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনার পর হিন্দু সম্প্রদায় অধ্যুষিত ওই এলাকার মানুষের মাঝে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে। ঘটনার পর রাতেই থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। বৃহস্পতিবার বিকালে সরেজমিনে উপজেলার উত্তর তাফালবাড়ির গাইনপাড়া এলাকায় হিন্দুদের সঙ্গে কথা বলে জানা জানা যায়, ওই গ্রামের রমনী গাইনের বাড়িতে নিয়মিত হরিনাম কীর্তন চলছিল। রাত সাড়ে ১০টায় ওই বাড়ির খড়ের গাদায় হঠাৎ আগুন দেখে এলাকাবাসী চিৎকার করলে সকলে এগিয়ে এসে পার্শ্ববর্তী পুকুর দিয়ে জল দিয়ে  নেভাতে সক্ষম হয়। বড় কোন বিপদের কথা চিন্তা করে বন্ধ করে দেওয়া হয় হরিনাম কীর্তন। 


স্থানীয় রমনী গাইন, অচিন্ত গাইন ও প্রদিপ গাইন জানান, তাৎক্ষনিকভাবে আগুন নেভাতে না পারলে পাশের একটি বসতঘর ভস্মিভুত হতো। তারা জানান, হিন্দুদের মাঝে আতংক ছড়িয়ে তাদের ধর্মীয় কীর্তন বন্ধসহ এলাকা ছাড়া করতে পূর্ব পরিকল্পিত এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হোসেন ও ইউপি সদস্য ওবায়দুল ইসলাম বলেন, হিন্দু অধ্যুষিত এলাকায় এ ধরনের আতঙ্ক সৃষ্টির বিষয়টি কঠোরভাবে দেখা হবে।

শরণখোলা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ঠাকুর দাস মন্ডল জানান, ঘটনাটির পর রাতেই পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। এ ব্যাপারে খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে। দোষীদের খোজে বের করা হবে দ্রুতই।

প্রচ