eibela24.com
শুক্রবার, ২১, সেপ্টেম্বর, ২০১৮
 

 
বর্ণাঢ্য আয়োজনে বৈসাবি উৎসবে মুখর পাহাড়
আপডেট: ১১:৫৪ am ১৪-০৪-২০১৮
 
 


পাহাড়িদের ঘরে ঘরে পালিত হচ্ছে তাদের ঐতিহ্যবাহী প্রধান সামাজিক উৎসব- বৈসাবি। ত্রিপুরা সম্প্রদায় বৈসুক, মারমারা সাংগ্রাই আর চাকমারা পালন করছে বিজু উৎসব- যার সমন্বয়ে সংক্ষিপ্ত পরিচিতি বৈসাবি।

বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া তিন দিনের উৎসবে শুক্রবার পালিত হচ্ছে উৎসবের মূল দিবস।

শুক্রবার উৎসবের মূল দিবসে ঘরে ঘরে চাকমারা মূল বিজু, মারমারা সাংগ্রাইং আক্যা এবং ত্রিপুরারা বৈসুকমা পালন করছেন। ঘরে ঘরে আয়োজন করা হয়েছে নানাবিধ বাহারি খাবারের। আপ্যায়নে মেতেছে শিশু-কিশোর, তরুণ-তরুণীসহ সব বয়সের নারী-পুরুষ। একাট্টা হন আবহমান বাংলার বাঙালিসহ সব জাতিগোষ্ঠীর মানুষ। পাহাড়জুড়ে বইছে খুশির জোয়ার।

রাঙামাটিতে পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ চেয়ারম্যান জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা ওরফে সন্তু লারমা, রাঙামাটির সংসদ সদস্য ঊষাতন তালুকদার, চাকমা সার্কেল চিফ রাজা ব্যারিস্টার দেবাশীষ রায়, সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা নিজ নিজ বাসভবনে সর্বজনীন আপ্যায়নের মধ্য দিয়ে সর্বস্তরের জনগণের সঙ্গে শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় করেছেন।

এছাড়া উৎসবে চাকমাদের গেঙ্গাখুলি গীতের (লোকজ পালা গান) আসর, বাঁশ নৃত্য, মারমাদের জলকেলি এবং ত্রিপুরাদের গৈড়াইয়া নৃত্য মাতিয়ে তোলে পাহাড়কে।

শনিবার বাংলা নববর্ষের প্রথম দিন বা উৎসবের তৃতীয় দিন চাকমাদের গোজ্যেপোজ্যে, মারমাদের সাংগ্রাইং আপ্যাইং এবং ত্রিপুরাদের বিসিকাতাল উদযাপনের মধ্য দিয়ে শেষ হবে তিন দিনের প্রধান সামাজিক উৎসব বৈসাবি। পাশাপাশি বাংলা নববর্ষ বরণে আয়োজন করা হয়েছে বৈশাখি উৎসবের।

নি এম/