eibela24.com
শুক্রবার, ১৯, জুলাই, ২০১৯
 

 
চড়কপূজায় চমক দেখালেন ৫ সন্ন্যাসী
আপডেট: ০৪:৩৮ pm ১৮-০৪-২০১৮
 
 


হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা চড়ককে ‘চড়কপূজা’ হিসেবে পালন করে কয়েক শতাব্দী ধরে। কিন্তু সব ধর্মের মানুষের কাছে তা হয়ে উঠেছে অপূর্ব এক মিলনমেলা। চৈত্রসংক্রান্তিতে অনুষ্ঠিত হয় চড়কপূজা।

বড়শিতে গাঁথা অবস্থায় চড়কগাছে ঝুলে প্রায় ২৫ ফুট শূন্যে বাতাসা ছিটাতে ছিটাতে ঘুরলেন একে একে পাঁচ সন্ন্যাসী। প্রতি বছরের মতো এবারও সোমবার বিকালে চড়ক উৎসবে গা শিউরে ওঠা এই দৃশ্য দেখলেন প্রায় ২০-২৫ হাজার মানুষ। ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার ফতেপুর বকুলতলায় প্রতি বছর এ উৎসব আয়োজনে এই পূজা হয়ে থাকে।

স্থানীয়রা জানান, প্রায় ২০০ বছর ধরে পঞ্জিকা মতে- বৈশাখ মাসের ৩ তারিখে ঐতিহ্যবাহী এই পূজা হয়ে আসছে। পূজাকে ঘিরে বাংলা নববর্ষের শুরুতেই তিন দিনব্যাপী এখানে চলে জমজমাট লোকজ মেলা।

চড়ক পূজা কমিটির সভাপতি স্বাধন কুমার ঘোষ জানান, এ বছর পাঁচ সন্ন্যাসী চড়ক পাকে অংশগ্রহণ করে। এবার যারা সন্ন্যাসী সেজেছেন বা পিঠে বড়শি ফুঁটিয়ে রশিতে বেঁধে চড়কগাছে উঠে ঘুরেছেন, তারা হলেন- শ্রী অসিত কর্মকার (মনা), অধীর হালদার, মহাদেব হালদার, বসুরেফ বাবু রায় ও বিপ্লব কর্মকার।

তিনি আরও জানান, এ দৃশ্য দেখা এবং কেনাকাটার জন্য এখনও ২০-৩০ হাজার নারী-পুরুষ ও ভক্তবৃন্দের সমাগম ঘটে। তবে অন্য বছরের তুলনায় এ বছর মেলা জমজমাট হয়েছে।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম সিরাজ জানিয়েছেন, এ উৎসব পালনের জন্য ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা করা হয়েছে।


বিডি