eibela24.com
বুধবার, ১৪, নভেম্বর, ২০১৮
 

 
সুনামগঞ্জে কারারক্ষী ধৈর্য্য দাসের লাশ উদ্ধার
আপডেট: ১১:৩৩ am ১২-০৫-২০১৮
 
 


সুনামগঞ্জ জেলা কারাগারের ভিতরেই ধৈর্য্য দাস সূর্য (২৬) নামে কর্মরত কারারক্ষীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।  তিনি সিলেট জেলা জৈন্তাপুর উপজেলার গিলাতলা গ্রামের দীপন্দ্রে দাসের ছেলে। কাকা নৃপেন্দ্র দাসের দাবি ধৈর্য্যকে নির্যাতন করে হত্যা করা হয়েছে।

জানা যায়, ধৈর্য্য দাস গত ১০এপ্রিল এফিডেফিটের মাধ্যমে সনাতন হিন্দু র্ধম ত্যাগ করেন ইসলাম ধর্ম গ্রহন করেন। পরে তার নাম রাখা হয় মোঃ আমজাদ হোসেন। এবং একেই দিনে নিজ কর্মস্থলেই তার সহকর্মী সাজেদা ইয়াসমিন কে ইসলাম র্ধম মতে জেলা কারাগারের ভিতরেই জেল সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে বিয়ে করেন। ইয়াসমিন আক্তারের বাড়ি সিলেটের দক্ষিন সুরমা উপজেলায়। এই বিয়ে ও ধর্মান্তরিত হওয়ার বিষয়টি তার পরিবার মেনে নিতে পারেন নি। বিয়ের পর তাদের সংসার ভাল চললেও এ নিয়ে ধৈর্য্য দাসের পরিবারের সাথে তার সম্পর্কের টানপোড়ন চলছিল। ধৈর্য্য দাসে ৭-৮মাস হয় সুনামগঞ্জ জেলা কারাগারে যোগদান করেছে। শুক্রবার বিকালে ধৈর্য্য দাসের স্ত্রী সাজেদা রান্না ঘরে রান্নার কাজে ব্যস্থ থাকার এক প্রর্যায়ে আমাজদ হোসেন তার নিজ কক্ষের দরজা র্দীঘ ক্ষন লাগানো দেখে স্ত্রী ডাকাডাকি করলেও কোন সারা না পাওয়ায় আশ পাশের সহকর্মীদের জানালে তারা এসে ঘরের দরজা ভেঙ্গে দেখে যে ধৈর্য্য দাসকে সিলিং ফ্যানের সাথে ওড়না পেছানো অবস্থায় ঝুলে রয়েছে। সাথে সাথে কারা কতৃপক্ষ ও সদর থানা পুলিশ কে অবহিত করা হলে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে। 

এঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জেল সুপার মোঃ আবুল কালাম জানান, বিকালে খবর পেয়ে গিয়ে দেখি আমজাদ হোসেন তার নিজ কক্ষেই আত্নহত্যা করেছে।

নি এম/জাহাঙ্গীর