eibela24.com
মঙ্গলবার, ২৫, সেপ্টেম্বর, ২০১৮
 

 
প্রধানমন্ত্রীকে এসএমএস, ভাগ্য খুলে যায় সামাদের
আপডেট: ০৬:৫৮ pm ২২-০৬-২০১৮
 
 


নিজের অটোরিকশা হারিয়ে অনেক খোঁজাখুঁজির পর কূলকিনারা না পেয়ে ইন্টারনেট থেকে প্রধানমন্ত্রীর মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করেন চালক আবদুস সামাদ। পরে সাহায্য চেয়ে সোমবার এসএমএস পাঠান। 

এসএমএসে সামাদ লেখেন, মা, আপনি সারা দেশের মা। আমাকে একটু সাহায্য করুন।

এসএমএসটি প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টিগোচর হতেই কপাল খুলে যায় সামাদের। তাকে একটি নতুন অটোরিকশা দেয়া হয়। এ ঘটনায় এলাকায় আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছেন ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলার বাসিন্দা সামাদ।

সামাদের অটোরিকশাটি ২৮ মে গ্যারেজ থেকে হারিয়ে যায়। সংসার চালানোর একমাত্র অবলম্বন অটোরিকশাটি হারানোর পর পথে বসার উপক্রম হয় তার। উপায়ান্তর না দেখে ইন্টারনেট থেকে প্রধানমন্ত্রীর মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করেন তিনি। পরে ওই নম্বরে এসএমএস পাঠান তিনি।

এসএমএসটি যে প্রধানমন্ত্রীর নজরে আসবে তা ভাবতেই পারেননি সামাদ। বুধবার তার বাড়িতে পুলিশ হাজির হয়ে জানতে চায় তিনি কোনো এসএমএস পাঠিয়েছেন কি-না। প্রথমে ভয় পেয়ে যান সামাদ। পরে তিনি বুঝতে পারেন তাকে সাহায্য করার জন্য পুলিশ এসেছে। 
বৃহস্পতিবার পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম তার অফিসে ডেকে নিয়ে সামাদের হাতে একটি অটোরিকশা তুলে দেন।

সামাদ জানান, তিনি কল্পনাও করতে পারেননি এমনটা ঘটবে। সবই স্বপ্ন মনে হচ্ছে তার কাছে। এক লাখ ৬০ হাজার টাকা ধারদেনা করে ওই অটোরিকশা কেনেন তিনি। এর আয় থেকেই স্ত্রী, দুই ছেলে ও এক মেয়ে নিয়ে চলে তার সংসার। স্কুলে যায় তার দুই সন্তান।

ময়মনসিংহ পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম জানান, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে ওই এসএমএসের বিষয়টি জানানো হয়। শুধু নাম ও এলাকার কথা উল্লেখ ছিল। এসএমএসটি নজরে আসার পর প্রধানমন্ত্রী ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেন। পরে আবদুস সামাদকে খুঁজে বের করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয় এবং তার হাতে বৃহস্পতিবার অটোরিকশা তুলে দেয়া হয়।

বিডি