eibela24.com
বুধবার, ২১, নভেম্বর, ২০১৮
 

 
গলাচিপায় একই পরিবারের তিনজনকে মারধর 
আপডেট: ০৯:৩৯ pm ২৬-০৬-২০১৮
 
 


পটুয়াখালীর গলাচিপায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ফোরকান হাওলাদার (৫০), স্ত্রী চিনারা বেগম (৪০) ও সন্তান সোহাগ (১৮) কে গুরুতর আহত অবস্থায় এলাকাবাসী গলাচিপা হাসপাতালে ভর্তি করে। 

ফোরকান হাওলাদার হচ্ছেন গলাচিপা ইউনিয়নের উত্তর বোয়ালিয়া গ্রামের ৫নং ওয়ার্ডের মৃতঃ কেরামতআলী হাওলাদারের ছেলে। 

ঘটনাসূত্রে জানা যায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে জমি জমার বিরোধ ছিল। প্রতিপক্ষ সোমবার ব্রীজ বাজারে বেলা আনুমানিক ১২ টার দিকে ফোরকান হাওলাদারের দোকানের সামনে কথার কাটাকাটির একপর্যায়ে চড়াও হয়ে ফোরকান হাওলাদারসহ তার স্ত্রী, সন্তানকে বেধম মারধর করে। তাদের ডাক-চিৎকারে এলাকাবাসী এসে পড়লে মারধরকারীরা পালিয়ে যায়। এলাকাবাসী উন্নত চিকিৎসার জন্য গলাচিপা হাসপাতালে ভর্তি করে। 

কর্মরত ডাক্তার রাজিব বিশ্বাস বলেন, ফোরকান হাওলাদারের মাথায় সেলাই আছে, সোহাগের মাথায় ও সেলাই আছে এবং চিনারা বেগম এর বাম পায়ে চোট লেগেছে। আমার চিকিৎসাধীনে তৃতীয় তলায় বেডে ভর্তি আছেন। ফোরকানের অবস্থা বেশী একটা ভাল না। ফোরকানকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরে-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানান। 

এ ব্যাপারে ইউপি সদস্য সিদ্দিক মোল্লা প্রতিবেদক কে বলেন, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে জমি-জমার বিরোধকে কেন্দ্র করে এ মারামারি। ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান হাদি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেন।  

এসডি/বিডি