eibela24.com
রবিবার, ২৩, সেপ্টেম্বর, ২০১৮
 

 
আর্জেন্টিনার পরাজয়ে বউ গরম, ঘরে তালা! 
আপডেট: ০৯:২৮ pm ০১-০৭-২০১৮
 
 


"মাডার হয়্যা গেছি চাচা মাডার, আদা(অর্ধেক) বেলা গাড়ি বন্ধ থুলাম(রাখলাম), বাজি ধরা ২শ ট্যাকাও গেল, আর্জেন্টিনা দলও হারলো, বাড়িত্ যায়্যা দেখি ঘরোত্ তালা বউ গরম, কিসের খাওয়া-কিসের দাওয়া। চোকোত্ (চোখে) নাই ঘুম, তার মোদে চেংরাগুল্যা(ছেলেরা) মাথাত্ অং (রং)দিবে, হায়রে আর্জেন্টিনা হায়রে মেসি, মাডার হয়্যা গেছি চাচা মাডার"। 

দুঃখ ভারাক্রান্ত হৃদয়ে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন আর্জেন্টিনা দলের অন্ধভক্ত ৭২বছর বয়সি অটো চালক বৃদ্ধ রোস্তম আলী। তিনি গাইবান্ধা জেলার সাঘাটা উপজেলার পদুমশহর ইউনিয়নের ডিমলা পদুমশহর গ্রামের মৃতঃ আইজল আকন্দের পুত্র।

রোস্তম আলী বুদ্ধি হবার পর থেকে ম্যারাডোনার আর্জেন্টিনা দলকে অন্ধ ভক্তের মতো সাপোর্ট করেন। কিন্তু বাড়িতে খেলা দেখার ক্ষেত্রে তার স্ত্রী রোকেয়া বেগম স্টার জলসা চ্যানেলটি প্রতিনিয়ত দেখায় চলমান খেলা দেখা থেকে বঞ্চিত হন রোস্তম আলী। পথে ঘাটে যেখানে সুযোগ হতো তিনি অটো চালানো বন্ধ রেখে প্রিয় দলের খেলাগুলো দেখতেন। তবে স্ত্রীর শর্ত অনুযায়ী সন্ধ্যার পূর্বেই তাকে বাড়িতে ফিরতে হতো। চলমান খেলায় তার দল কাপ নেবে এটাই তার বিশ্বাস। ৩০ জুন আর্জেন্টিনা বনাম ফ্রান্সের মধ্যকার খেলাটি দেখার জন্য দুপুরের পর থেকে তিনি আয়ের একমাত্র উৎস অটোটি বন্ধ রেখে বোনারপাড়া রেলওয়ে জংশন স্টেশনে প্রিয় দলের খেলাটি উপভোগ করেন।

নিজ দল জিতবে বলে তিনি ২শ টাকা বাজিও ধরেন। কিন্তু বিধি বাম! দলের পরাজয় ও বিপক্ষ দলের সমর্থকদের টিপ্পনী ও অপমানজনক কথায় রোস্তম আলী লজ্জিত হন। বাড়ি থেকে স্ত্রীর একাধিক ফোন কলে রোস্তম আলীর মাথাটি আরো বিগড়ে যায়। বাড়িতে এসে দেখেন ঘরে তালা, বউ বেজায় রেগে আছেন। 

এ প্রতিনিধির সাথে আলোচনার সময় তিনি আক্ষেপ করে বলেন, চাচা-সংসার জীবনে নিজের স্ত্রীকেই বুঝাতে পারলাম না আর্জেন্টিনা, ম্যারাডোনা ও মেসি কি জিনিস। আর অন্যেরা কি বুঝবে আমার দুঃখ? মাডার হয়্যা গেছি চাচা মাডার।

বিকে/বিডি