eibela24.com
শনিবার, ২২, সেপ্টেম্বর, ২০১৮
 

 
বিজিবি সীমান্তে চোরাচালান সহ সবধরনের অপরাধ দমনে কাজ করে যাচ্ছে: বিজিবির মহাপরিচালক
আপডেট: ০৫:৪৯ pm ০২-০৭-২০১৮
 
 


বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) এর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো: সাফিনুল ইসলামবলেন, প্রতিবেশী দেশ ভারত ও মায়ানমার’র সাথে আমাদের ভালো সম্পর্ক্য। তাদের  সাথে সমন্বয় করে সমন্বিত ভাবে সীমান্তে চোরাচালান সহ সবধরনের অপরাধ দমনে কাজ করে যাচ্ছি।  আমরা বেনাপোলে  সফলতার সাথে ক্রাইম জোন স্থাপন করেছি। ফলে এ অঞ্চলে অপরাধ দমন সম্ভব হয়েছে। বিএসএফ’র সাথে সমন্বয় করেই অপরাধ দমন সম্ভব হযেছে। 

সোমবার দুপুরে বেনাপোলের পুটখালী সীমান্তে ‘বর্ডার সার্ভেইল্যান্স এন্ড রেসপন্স সিস্টেম’ পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন। 

এর আগে তিনি বেনাপোল চেকপোস্ট এলাকা পরিদর্শন করেন। বিএসএফ এর ৬৪ ব্যাটালিয়নের কমান্ডিং অফিসার কর্ণেল রাভি ভূষন তাকে ফুল দিয়ে শূভেচ্ছা  জানান নোমান্স ল্যান্ড এরাকায়।  মহাপরিচালকের সাথে ছিলেন, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল  মামুন , বিজিবির সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল তৌহিদুল ইসলাম, ৪৯ বিজিবির কমান্ডিং অফিসার লে; কর্নেল আরিফুল হক, ২১ বিজিবির সিও তারিকুল হাকিম, আর আই বির সিও লে; কর্নেল খবির উদ্দিন,

প্রথমবারের মতো ‘বর্ডার সার্ভেইল্যান্স এন্ড রেসপন্স সিস্টেম’ বাস্তবায়নের ফলে সীমান্ত সুরক্ষায় নতুন দিগন্তের সূচনা হবে। সীমান্তে সর্বাধুনিক প্রযুক্তির সাহায্যে সবধরণের চোরাচালান ও অপরাধ প্রতিরোধে এই ব্যবস্থা কার্যকর ভুমিকা রাখবে বলে বিজিবি জানান। 

বর্ডার সার্ভেইল্যান্স এন্ড রেসপন্স সিস্টেম’ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বাংলাদেশের সঙ্গে ভারত ও মিয়ানমার সীমান্তবর্তী ৩৯৯ কিলোমিটার এলাকা ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। স্পর্শকাতর ওই এলাকাজুড়ে বিজিবির নজরদারি নিশ্চিত করতে সর্বাধুনিক প্রযুক্তির ‘বর্ডার সার্ভেইল্যান্স এন্ড রেসপন্স সিস্টেম’ স্থাপনের উদ্যোগ নেয়া হয়। এগুলোর মধ্যে রয়েছে থার্মাল ক্যামেরা, ভিডিও ক্যামেরা, রাডার, সেন্সরযুক্ত বিভিন্ন যন্ত্র ও সমন্বিত যোগাযোগ নেটওয়ার্ক।

নি এম/মহসিন