eibela24.com
মঙ্গলবার, ১৯, ফেব্রুয়ারি, ২০১৯
 

 
প্রধানমন্ত্রীর নামে টেক্সটাইল মিল স্থাপনের প্রকল্প অনুমোদন
আপডেট: ০৬:৫০ pm ০৩-০৭-২০১৮
 
 


পাট খাতের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে টেক্সটাইল মিল হচ্ছে। এতে বরাদ্দ ধরা হয়েছে ৫১৮ কোটি ৮৫ কোটি টাকা। এর মাধ্যমে পাট ও তুলার সংমিশ্রণে ডেমিম প্যান্ট, জ্যাকেট ও শার্ট তৈরি হবে। জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় এ প্রকল্প অনুমোদন দেয়া হয়। সভায় মোট ৮টি প্রকল্পের অনুমোদন দেয়া হয়।

মঙ্গলবার শেরে বাংলা নগরে এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক চেয়ারপারসন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে একনেক সভায় প্রকল্পগুলোর অনুমোদন দেয়া হয়। একনেক সভা শেষে প্রকল্পগুলো নিয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, জামালপুরের মাদারগঞ্জে এই মিল স্থাপন করা হবে। পাট ও কুলার সংমিশ্রণে সাশ্রয়ী মূল্যে সুতা, কাপড়, তৈরি পোশাক উৎপাদন করে রফতানি করা হবে। একে পাটজাত দ্রব্য থেকে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন বাড়বে।

রাজধানীর গুলশানে বিদ্যুতের ভূগর্ভস্থ উপকেন্দ্র নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে ঢাকা ইলেকট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি (ডেসকো)। প্রকল্পটি একনেক উত্থাপন করা হলে অনুমোদন হয়। জমি স্বল্পতার অজুহাতে মাটির নিচে এ উপকেন্দ্র নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়। কিন্তু এটি মাটির নিচে নির্মাণ করলে যে পরিমাণ জমি সংরক্ষণ করা সম্ভব, তার মূল্যের চেয়ে অনেক বেশি খরচ হবে ভূগর্ভে নির্মাণে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, রাজধানীর গুলশানে ১৩২/৩৩/১১ কেভি ভূগর্ভস্থ উপকেন্দ্রটি নির্মাণে ব্যয় ধরা হয়েছে ৯৫০ কোটি টাকা। এর মধ্যে ডেসকোর নিজস্ব অর্থায়ন ৭৪ কোটি টাকা। জাপানের সংস্থা জাইকা ঋণ দেবে ৬২৮ কোটি টাকা। বাকি ২৪৭ কোটি টাকার জোগান দেবে বাংলাদেশ সরকার। এর মধ্যে ৯৯ কোটি টাকা ঋণ হিসেবে দেবে সরকার। অন্যদিকে বিদ্যুৎ সঞ্চালয় সক্ষমতা বৃদ্ধিতে বিভিন্ন স্থানে মাটির ওপরে যেসব উপকেন্দ্র নির্মাণ করা হচ্ছে, তাতে ব্যয় হচ্ছে ১০০-১১০ কোটি টাকা।

এছাড়া সভায় ৮টি (নতুন ও সংশোধিত) প্রকল্প অনুমোদন দেয়া হয়। এতে মোট ব্যয় হবে ৬ হাজার ৪৯৩ কোটি ৮ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকারি অর্থায়ন করা হবে ৩ হাজার ২৭৯ কোটি ২২ লাখ টাকা, সংস্থার নিজস্ব অর্থায়নে ব্যয় করা হবে ১৭৯ কোটি ৯৮ লাখ টাকা এবং প্রকল্প সাহায্য ৩ হাজার ৩৩ কোটি ৮৮ লাখ টাকা।

অন্যান্য প্রকল্পগুলো হলো- পদ্মা পানি শোধনাগার নির্মাণ, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে আওতায় কমিউনিটি সেন্টার স্থাপন, মোল্লার হাটে ১০০ মেগাওয়াট সৌর বিদ্যুৎ প্রকল্প, ময়মনসিংহ ও চট্টগ্রামে নিউক্লিয়ার মেডিসিন অ্যান্ড এ্যালায়েড স্থাপন, সোনাইমুড়ি- সসেনবাগ-কল্যান্দী- চন্দেরহাট, বসুরহাট সড়ক উন্নয়ন প্রকল্প।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন পরিকল্পনা সচিব জিয়াউল ইসলাম, সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সদস্য ড. শামসুল আলম প্রমুখ।

বিডি