eibela24.com
মঙ্গলবার, ১১, ডিসেম্বর, ২০১৮
 

 
১৩ জুলাই ঢাকায় আসছেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী 
আপডেট: ০৮:২০ pm ০৮-০৭-২০১৮
 
 


বাংলাদেশ সফরে আসছেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শ্রী রাজনাথ সিং। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের ৩ দিনের বৈঠকে যোগ দিতে ১৩ জুলাই ঢাকায় নামবেন তিনি। এটি বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে মন্ত্রী পর্যায়ে ৬ষ্ঠ বৈঠক। 

এ সময় ৩টি এমওইউ স্বাক্ষরসহ দ্বিপক্ষীয় নানা সহযোগিতার বিষয় নিয়ে বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল ও রাজনাথের মধ্যে আলোচনা হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গেও সাক্ষাৎ করবেন তিনি। পররাষ্ট্র ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। বৈঠকে দু’দেশের নিরাপত্তা, সন্ত্রাস, জঙ্গি প্রতিরোধে সহযোগিতা, সীমান্ত ব্যবস্থাপনা নিয়ে আলোচনা হবে।

রাজনাথের সফরসঙ্গী হিসেবে থাকছেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উচ্চপদস্থ ১২ কর্মকর্তা। এ ছাড়াও প্রতিনিধি দলে ভারতীয় হাইকমিশনারসহ ঢাকাস্থ দূতাবাসের ৭ কর্মকর্তা থাকছেন। ভারতীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ১৯ সদস্যের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেবেন। সফর শেষে ১৫ জুলাই দুপুরে বিশেষ বিমানে দিল্লির উদ্দেশে রওয়ানা দেবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংহের প্রতিনিধি দলে রয়েছেন- স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিশেষ সেক্রেটারি (বিএম) শ্রী বারজ রাজ শার্মা, অতিরিক্ত সচিব শ্রী এ কে মিসরা, যুগ্ম সচিব (এনই) সাতিনদিয়া গর্গসহ ১২ জন। আর ঢাকাস্থ ভারতীয় হাইকমিশনের হাইকমিশনার শ্রী হর্ষ বর্ধণ শ্রীংলাসহ ৭ কর্মকর্তা।

১৩ জুলাই সন্ধ্যায় ভারতীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকাস্থ দূতাবাস আয়োজিত নৈশভোজে যোগ দেবেন। নৈশভোজে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি ও বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারাসহ বিশিষ্ট নাগরিকরা উপস্থিত থাকবেন বলে জানা গেছে।

পরদিন (১৪ জুলাই) গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। এরপর যমুনা ফিউচার পার্কে ইন্ডিয়ান ভিসা অ্যাপ্লিকেশন সেন্টার উদ্বোধন করবেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এই ভিসা আবেদন কেন্দ্রে কোনো ধরনের অ্যাপায়নমেন্ট ছাড়াই ভিসা আবেদন জমা নেয়া হবে। রাজধানী ঢাকায় বেশ কয়েকটি আইভ্যাক (ইন্ডিয়ান ভিসা অ্যাপ্লিকেশন সেন্টার) ভারতীয় ভিসা আবেদন জমা নেয়া হয়ে থাকে। যমুনা ফিউচার পার্কের নতুন ভিসা সেন্টারটি হবে বড় সেন্টার। এখানে প্রায় ৫০টি কাউন্টার থাকবে। প্রায় ৭শ’ ভিসা প্রার্থী একত্রে বসতে পারবেন।

এদিন দুপুর আড়াইটায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সঙ্গে বৈঠক করবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। পরে তারা ৩টি এমওইউতে সই করবেন। ভারতের প্যাটেল ন্যাশনাল পুলিশ একাডেমি ও বাংলাদেশের সারদা পুলিশ একাডেমির মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতা চুক্তি, এন্টি করাপশন অব বাংলাদেশ (এসিসি) এবং সেন্ট্রাল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (সিবিআই) ইন্ডিয়ার মধ্যে সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর ও ২০১৮ সালে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে রিভাইজড ট্রাভেল এগ্রিমেন্ট স্বাক্ষর করা হবে।

ভারতীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে বঙ্গবন্ধু জাদুঘরে যাবেন। সেখান থেকে বিজিবি সদও দফতর পিলখানায় যাবেন। শ্রী রাজনাথ তার সম্মানে বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দেয়া নৈশভোজ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেও যোগ দেবেন।

১৫ জুলাই রোববার রাজশাহীর বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমি সারদাতে যাবেন তিনি। সেখানে বাংলাদেশ ও ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আইটি ও ফরেনসিক ল্যাবের উদ্বোধন করবেন। এ ছাড়াও সেখানে পুলিশ সহায়তায় এক এমওইউ স্বাক্ষর হবে। বাংলাদেশ সফরকালে অত্যন্ত ব্যস্ত সময় পার করবেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

বিডি