eibela24.com
শনিবার, ২২, সেপ্টেম্বর, ২০১৮
 

 
আসামে দুইয়ের বেশি সন্তান হলে সরকারি চাকরি বাতিল
আপডেট: ০৪:১৩ pm ১০-০৭-২০১৮
 
 


ভারতে বিজেপি সরকার একেরপর এক চমকে দেওয়া আইন তৈরি করে চলেছে। বাবা-মায়ের যত্ন না নিলে সরকারি কর্মীদের মাইনের দশ শতাংশ কেটে নেওয়া হবে বলে আগেই আইন হয়েছে। এবার আর একটি নতুন আইন সামনে এল। দুইয়ের বেশি সন্তান হলেই চাকরি চলে যাবে সরকারি কর্মীদের।

তৃতীয় সন্তান জন্মালেই চাকরি চলে যাবে—সরকারি কর্মীদের জন্য এমন কড়া আইন চালু করার কথা জানিয়েছেন আসামের স্বাস্থ্যমন্ত্রী হীমন্ত বিশ্বশর্মার। আসামের গুয়াহাটিতে এক অনুষ্ঠানে তিনি এ ঘোষণা দেন। সরকারি কর্মীদের সতর্ক করে দিয়ে তিনি বলেন, দুই সন্তানের সীমা লঙ্ঘন করলেই বিপাকে পড়তে হবে। আইন হচ্ছেই। রাজ্য সরকার সেই লক্ষ্যে অনেকটা এগিয়ে গিয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি।

আসামের স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ দফতরের মন্ত্রী হিমন্ত বিশ্বশর্মা জানিয়েছেন, সমস্ত সরকারি কর্মীদের জন্য দুটি সন্তান নীতি খুব তাড়াতাড়ি সরকারি সার্ভিস রুলে চালু হচ্ছে। আসামের জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ করেই আর্থ-সামাজিক উন্নয়নকে তরান্বিত করার চেষ্টা করছে সরকার।

পাশাপাশি কেন্দ্র যাতে বিধানসভা নির্বাচনে লড়ার ক্ষেত্রে দুই সন্তান নীতিকে মান্যতা দেয় সেটাও ভেবে দেখতে বলেছে সরকার।

আসাম সরকারের মতে, যদি বিধায়কদের দুটির বেশি সন্তান থাকে তাহলে তাঁদের সরিয়ে দিয়ে নির্বাচনে যাতে দাঁড়াতে না পারে তার ব্যবস্থা করা উচিত। পাশাপাশি যারা নিয়ম মানবেন না তাদের সরকারি চাকরির ক্ষেত্রেও আসাম সরকার বাধা হয়ে দাঁড়াবে বলে নতুন নিয়মে স্পষ্ট বলা হয়েছে।

প্রসঙ্গত ২০০১ সালের আদমসুমারী অনুযায়ী অসমের জনসংখ্যা ছিল ২.৬৬ কোটি জন। ২০১১ সালে তা বেড়ে হয়েছে ৩.১২ কোটি জন। দশ বছরে ১৭.০৭ শতাংশ জনসংখ্যা বেড়েছে যা স্বাভাবিকের তুলনায় বেশি বলে মনে করা হচ্ছে। আর তাই জনসংখ্যায় লাগাম পরাতে নতুন আইন এনেছে অসম সরকার।

নি এম/