eibela24.com
সোমবার, ১৯, নভেম্বর, ২০১৮
 

 
ঢাবিতে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের কর্মসূচিতে ছাত্রলীগের হামলা
আপডেট: ০৩:৪৭ pm ১৫-০৭-২০১৮
 
 


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি মানববন্ধন পরবর্তী মিছিলে হামলা চালানোর অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে। কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতাদের মুক্তির দাবিতে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন শেষে মিছিল করার সময় হামলার ঘটনাটি ঘটে।

রবিবার দুপুর পৌনে ১টার দিকে শিববাড়ি মোড়ে শেখ রাসেল টাওয়ারের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

হামলার প্রত্যক্ষদর্শী ও শিক্ষার্থীরা বলেন, রবিবার সকাল ১১টা ২০ মিনিটের দিকে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের মধ্যে যারা কারাগারে রয়েছেন ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তাদের নিঃশর্ত মুক্তি ও নিরাপদ ক্যাম্পাসের দাবিতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মানববন্ধন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের ৪০০-৪৫০ জন শিক্ষার্থী। গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ফাহমিদুল হকসহ ছয় জন শিক্ষক এই মানববন্ধনে ছিলেন।

এসময় শহীদ মিনারের পাশে আইন অনুষদের সামনে ছাত্রলীগের ২০০-৩০০ জন নেতাকর্মীরা ‘ক্যাম্পাসে স্থিতিশীল পরিবেশ রক্ষার দাবিতে’ মানববন্ধন করে লাউড স্পিকারে বক্তব্য দিচ্ছিলেন। একপর্যায়ে ‘পাকিস্তানি রাজাকার শিক্ষকদের বহিষ্কার করতে হবে’, ‘শিক্ষকেরা জামায়াত-শিবিরের দোসর’ ইত্যাদি স্লোগান দিতে থাকেন ছাত্রলীগের কর্মীরা। শিক্ষকদের গালাগালি ও মাইক বন্ধ করে দেওয়ার অভিযোগও পাওয়া যায়। হেনস্তার শিকার হয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা শহীদ মিনারের সামনে থেকে সরে যেতে বাধ্য হন। সেখান থেকে সরে তাঁরা মিছিল বের করেন।

মিছিলটি আইন অনুষদের দিকে গিয়ে দাঁড়ালে ছাত্রলীগের কর্মীরা মিছিলে ঢুকে যান। তাঁরা ছাত্রীদের মারধর করেন। শিক্ষকদের গালিগালাজ করতে থাকেন। ছাত্রলীগের বাধা ও হামলার মুখে মিছিলটি ছত্রভঙ্গ হয়। শিক্ষক ও ছাত্রদের একাংশ আবার শহীদ মিনারে অবস্থান নেন।

কর্মসূচিতে শিক্ষকদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. তানজীম উদ্দীন খান, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক ফাহমিদুল হক, আবদুর রাজ্জাক প্রমুখ।

ছাত্র শিক্ষকদের ওপর হামলার প্রতিবাদে ঘটনার পর পরই বামপন্থী ছাত্র সংগঠনগুলোর জোট প্রগতিশীল ছাত্র জোটের নেতাকর্মীরা শাহবাগ মোড় অবরোধ করেন। তারা প্রায় ২০ মিনিট শাহবাগ অবরোধ করে রাখেন। পরে পুলিশ তাদের সেখান থেকে সরিয়ে দেয়।

এ বিষয়ে ঢাবির গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক ফাহমিদুল হক বলেন, মানববন্ধনের শেষ পর্যায়ে সরকার দলীয় ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মীরা আমাদের ঘিরে ফেলে। পরে আমরা রাজু ভাস্কর্যের দিকে যাওয়ার পথে শিববাড়ি মোড়ে শেখ রাসেল টাওয়ারের সামনে তারা শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালায় এবং আমাদেরকে লাঞ্ছিত করে।

নি এম/