eibela24.com
বুধবার, ২১, নভেম্বর, ২০১৮
 

 
সৈয়দপুরে ফার্নিচার মিস্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা
আপডেট: ০৭:১৩ pm ১৫-০৭-২০১৮
 
 


নীলফামারীর সৈয়দপুরে রবিবার (১৫ জুলাই) সকালে শাহজাদা (৩৫) নামে এক ফার্নিচার মিস্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। নিহত ফার্নিচার মিস্ত্রী শাহাজাদা শহরের বাশবাড়ী টালি মসজিদ এলাকার মো: নবাবের ছেলে।

নিহতের স্ত্রী জয়নব জানান, আমার স্বামী কামার পুকুরের তকির এন্টারপ্রাইজ ফার্নিচারের কারখানায় মিস্ত্রি হিসেবে কাজ করতো। কারখানার মালিক তানভীর হাজী কাজির হাট পানির ট্যাংকির কাছে তার কেনা জায়গায় বাসা করে দিয়েছেন সেখানেই আমরা দুই সন্তানসহ ২ বছর থেকে বসবাস করি। আমার ননদের বিয়ে উপলক্ষে গত কয়েক দিন থেকে আমরা শ্বশুর বাড়ি বাঁশবাড়িতে আছি। আমার স্বামী রাতের বেলায় কাজির হাটের বাসায় থাকেন। শনিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে আমার স্বামী বাঁশবাড়ীর বাসা থেকে ভাড়া বাড়ির উদ্দেশ্য বের হয়ে যায়। 

রবিবার সকাল আটটার দিকে খবর পাই আমার স্বামীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। পুলিশ তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় তার মৃত্যু হয়। আমি আমার স্বামীর হত্যাকারীর ফাঁসি চাই।
 
নিহতের শ্যালিকা আশা মনি জানান, আমার দুলাইভাই ওই কারখানার কয়েকজন মিস্ত্রী মিলে কাজ করতো। দুলাভাইয়ের কাছে শুনেছি বিভিন্ন সময় তাকে টাকা কম দেয়া হতো এনিয়ে বেশ কয়েকবার তাদের সাথে ঝগড়া বিবাদ হয়েছে। 

এলাকাবাসী জানায়, রাতের কোনো এক সময় দুর্বৃত্তরা বাড়িতে ঢুকে তাকে হত্যা করা হয়। সকালে তার বাড়িতে গেলে তার গোঙানি শুনতে পান। সেখানে একজনকে বিবস্ত্র অবস্থায় উপুড় করে রাখা হয়েছে। লোকটি তখন পর্যন্ত বেঁচে ছিল। এ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহজাহান পাশা জানান, খবর পেয়ে সৈয়দপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অশোক কুমার পালসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নীলফামারী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অশোক কুমার পাল জানান, এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড। ঘটনার সাথে জড়িতদের সনাক্ত করে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।


এমএএম/বিডি