eibela24.com
সোমবার, ১৯, নভেম্বর, ২০১৮
 

 
হলি আর্টিজান হামলার চার্জশিট দাখিল
আপডেট: ০৩:৩৬ pm ২৩-০৭-২০১৮
 
 


গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্তোরায় হামলার ঘটনায় দুই বছর পর ৮ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট জমা দিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট।

সোমবার বেলা ১২ টা ৪০ এর দিকে এক সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান মনিরুল ইসলাম এই তথ্য জানান।

মনিরুল ইসলাম বলেন, গ্রেপ্তার হওয়া রাজীব গান্ধী, বড় মিজান, রফিকুল ইসলাম রিগ্যান, সোহেল মাহফুজ, রাশেদুল ইসলাম ওরফে র‌্যাশ ও হাদিসুর রহমান সাগর এবং পলাতক শহীদুল ইসলাম খালেদ ও মামুনুর রশিদ রিপনের নাম চার্জশিটে দিয়েছে পুলিশ। ঘটনায় জড়িত ১৩ জন ইতিমধ্যে মারা যাওয়ায় চার্জশিট থেকে তাঁদের অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, তদন্তে দেখা গেছে, আসামিরা পাঁচ মাস আগে থেকেই হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। তাদের উদ্দেশ্য ছিল দেশকে অস্থিতিশীল করা, বাংলাদেশকে একটি জঙ্গি রাষ্ট্র বানানো, সরকারকে চাপের মুখে ফেলা।

মনিরুল ইসলাম আরও বলেন, সরকারকে কোণঠাসা করতে এবং বিনিয়োগ দাতারা যাতে বাংলাদেশ ছেড়ে চলে যায় সে উদ্দেশ্যে হলি আর্টিজানে হামলা চালানো হয়েছিল। এছাড়া যত বেশি সম্ভব বিদেশি নাগরিক হত্যার মাধ্যমে দেশ-বিদেশে আলোচনার সৃষ্টি করা ও আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠনগুলোর দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চেয়েছিল জঙ্গিরা।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ১ জুলাই রাত পৌনে নয়টার দিকে ৮ থেকে ১০ জন সন্ত্রাসী রেস্তোরাঁয় অতর্কিত হামলা চালিয়ে ২০ জন বিদেশি নাগরিকসহ ৩০-৩৫ জন লোককে জিম্মি করে রাখে। পরদিন শনিবার সকালে রেস্তোরাঁয় জিম্মিদের উদ্ধারে কমান্ডো অভিযান শুরু করে যৌথ বাহিনী। বিদেশি নাগরিকসহ মোট ১৩ জনকে জীবিত এবং মোট ২০ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

এ ছাড়া সন্ত্রাসীদের সঙ্গে গোলাগুলিতে ডিবির সহকারী কমিশনার (এসি) রবিউল ইসলাম এবং বনানী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সালাউদ্দিন নিহত হন।

নি এম/