eibela24.com
বুধবার, ২১, নভেম্বর, ২০১৮
 

 
গণপরিবহন চলাচল শুরু
আপডেট: ১০:০০ am ০৬-০৮-২০১৮
 
 


রাজধানীতে সোমবার সকাল থেকে গণপরিবহন চলাচল শুরু হয়েছে। নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের কারণে গণপরিবহন চলাচল বন্ধ ছিল। পাশাপাশি দূরপাল্লার পরিবহনও ছেড়েছে। ফলে সড়ক ব্যবস্থা ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে।

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে বাসের মালিক-শ্রমিকেরা ‘অঘোষিত ধর্মঘট’ ডেকেছিলেন।

রবিবার (৫ আগস্ট) রাতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ জানিয়েছিলেন, সোমবার থেকে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে দূরপাল্লার গাড়ি চলবে। 

তিনি বলেন, ‘দূর পাল্লার বাস চলাচলের বিষয়ে পরিবহন মালিক সমিতির মিটিং হয়েছে। মিটিংয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সোমবার সকাল থেকে সারাদেশে দূরপাল্লার বাস চলাচল করবে।’

সকালে রাজধানীর বাড্ডা, রামপুরা, মালিবাগ, মৌচাক, মগবাজার, কাওরান বাজার, শাহবাগ, পল্টন, গুলিস্তান, সায়েন্সল্যাব, নিউমার্কেট ও আজিমপুর এলাকায় গণপরিবহন চলাচল করতে দেখা গেছে। এছাড়া সায়েদাবাদ, যাত্রাবাড়ী, মহাখালী, শ্যামলী ও গাবতলী থেকেও গণপরিবহন ছেড়েছে। পাশাপাশি দূরপাল্লার বাসও ছেড়ে যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

সকাল সাড়ে সাতটার দিকে গাবতলী বাসস্ট্যান্ডের সামনে দেখা যায়, বৃষ্টির মধ্যে কিছু দূরপাল্লার বাস টার্মিনাল ছেড়ে গেছে। গাবতলীর পর্বত সিনেমা হলের সামনে পুলিশের চেকপোস্ট আছে। ঢাকার দিকে যেসব বাস ঢুকছে, সেগুলোর কাগজপত্র, চালকের লাইসেন্স পুলিশ তল্লাশি করছে।

দক্ষিণবঙ্গের অন্যান্য পরিবহনের বাসগুলো বেশির ভাগই তাদের নিজ জেলাতে রয়েছে। সেগুলো সোমবার দুপুর থেকে ঢাকার দিকে রওনা হবে।

ঢাকার মিরপুর থেকে গণপরিবহনগুলোর চলাচল শুরু হয়েছে। এদিকে সকাল থেকেই মিরপুর ১০ নম্বর গোল চত্বরে পুলিশ অবস্থান নিয়ে আছে। এখানে রবিবারের মতো আজও পুলিশের সাঁজোয়া যান ও জলকামান রয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২৯ জুলাই ঢাকার রাস্তায় বাসের চাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার পর রাজধানীসহ সারা দেশে নিরাপদ সড়কের দাবিতে রাস্তায় নেমে আসে শিক্ষার্থীরা। সড়কে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে রাস্তায় দাঁড়িয়ে বিভিন্ন যানবাহনের লাইসেন্স পরীক্ষা করতে শুরু করে তারা। তাদের এই আন্দোলন অভাবনীয় সাড়া জাগায়। কিছু জায়গায় গাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটলে রাজধানীসহ দূরপাল্লার যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

নি এম/