eibela24.com
শুক্রবার, ১৬, নভেম্বর, ২০১৮
 

 
রংপুরে হরিজন কলোনিতে নির্যাতন ও উচ্ছেদের অভিযোগ
আপডেট: ১১:০০ am ০৬-০৮-২০১৮
 
 


রংপুর সদর হাসপাতালে হরিজন কলোনি দীর্ঘদিনের। তারা আজ উচ্ছেদের শিকার। সরজমিনে দেখা গেছে দিলিপ, মুক্তা, সোনিয়া, গোকুলাসহ বেশ কয়েকটি বাড়ি উচ্ছেদ করা হয়েছে। 

দিলীপ জানান, আমরা বহু বছর যাবৎ পুরুষানুক্রমে সদর হাসপাতাল কলোনিতে বাস করে আসছি। সম্প্রতি আমরা লোকমুখে শুনতে পাই আমাদের কলোনি থেকে উচ্ছেদ করা হবে। কিন্তু সরকারীভাবে আমাদের কোন নোটিশ দেওয়া হয় নাই। আমরা একেবারেই হতদরিদ্র হরিজন সম্প্রদায়ের মানুষ, এখান থেকে আমাদের তাড়িয়ে দিলে আমাদের মরে যাওয়া ছাড়া আর কোন উপায় থাকবে না। 
 
এদিকে সদর হাসপাতাল কলোনিতে ছোট থেকে বড় হওয়া সোনিয়া, মুক্তা, সাজন, গোকুলা জানান, আমাদের মধ্যেই কিছু হরিজন ব্যক্তি ও স্থানীয় বাঙ্গালীদের যোগসাজসে ষড়যন্ত্র করে মাদক ব্যবসার মিথ্যা অভিযোগে আমাদের কলোনি হতে উচ্ছেদ করে দেয়। আমাদের বিভিন্নভাবে হুমকি প্রদান করে ও ভয়ভীতি দেখায়। 

এছাড়া তারা হেমন্তির নেতৃত্বে আরো ১০/১২ জন স্থানীয় মাস্তানদের নিয়ে গত শনিবার সকালে আমাদের বসতবাড়িতে হঠাৎ হামলা চালিয়ে বাড়িঘর ভাংচুর, লুটপাট ও ব্যাপক মারধর করে। তারপর আমাদের কলোনি থেকে জোরপূর্বক বের করে দেয়। হুমকি দিয়ে বলে তোরা আবার এখানে আসলে তোদের প্রাণে মেরে ফেলবো। এখন এই অবস্থায় আমরা ১২টি হরিজন পরিবার রাস্তায় রাস্তায় দিন কাটাচ্ছি।

নি এম/