eibela24.com
শুক্রবার, ২১, সেপ্টেম্বর, ২০১৮
 

 
থাইল্যান্ডের অযোধ্যায় শুরু বিশালকায় রাম-মন্দির নির্মাণের কাজ
আপডেট: ১০:১২ pm ০৯-০৮-২০১৮
 
 


ভারতে রাম-মন্দির ইস্যু আদালতের বিবেচনাধীন হলেও, থাইল্যান্ডে মহা-ধূমধামের সঙ্গে শুরু হল রাম-মন্দিরের কাজ। 

বুধবারই সেই রামমন্দিরের ভিত্তি প্রস্তর থাপন করা হয়েছে ।  রামের আদর্শ প্রচারের উদ্দেশ্যেই এই মন্দির তৈরি করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন মন্দির ট্রাস্টের সদস্যরা।

এদিন সংগঠনের সভাপতি মহন্ত জনমেজয় শরণ বলেন, আয়ুত্থায় নির্মাণ-পর্ব শুরু হয়েছে। ভারতে মন্দির নির্মাণের বিষয়টি সুপ্রিম কোর্টের বিবেচনাধীন হওয়ায় আগে থাইল্যান্ডেই তৈরি করা হচ্ছে এই মন্দির। যদিও ভারতের আশা দেশের সর্বোচ্চ আদালত তাঁদের পক্ষেই রায় দেবে। আর তেমনটা হলেই, দ্রুত অযোধ্যায় রাম-মন্দিরের কাজ শুরু হবে। মহন্ত জানান, ২০১৯ সালের কুম্ভ মেলা শুরুর আগেই অযোধ্যায় মন্দির-নির্মাণ শুরু হবে।

মহন্ত আরো জানান, থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককের মধ্যে দিয়ে বয়ে যাওয়া চাও ফ্রায়া নদীর পাড়ে গড়ে উঠবে এই সুবিশাল মন্দির। কথিত আছে, পঞ্চদশ শতাব্দীতে থাইল্যান্ডের রাজধানী ছিল আয়ুত্থু। স্থানীয় ভাষায় যার অর্থ অযোধ্যা। অষ্টদশ শতাব্দীতে বার্মার সেনা যখন এই শহর ধ্বংস করে, তখন নতুন রাজা ব্যাংককে রাজধানী তৈরি করেন। তিনি নিজের নাম রাখেন ‘রাম-১’। তিনি স্থানীয় ভাষায় রামায়ণকে রচনা করেন, যা ‘রামাকিয়েন’ নামে পরিচিত।

নি এম/