eibela24.com
রবিবার, ২৩, সেপ্টেম্বর, ২০১৮
 

 
মহেশখালীতে বন্দুকযুদ্ধে সন্ত্রাসী নিহত
আপডেট: ০৫:৪১ pm ১৩-০৮-২০১৮
 
 


কক্সবাজারের মহেশখালীতে দু’সন্ত্রাসী বাহিনীর কথিত বন্দুকযুদ্ধে আব্দুল মালেক (৩৫) নিহত হয়েছে। এসময় ৫টি দেশীয় তৈরী অস্ত্র, ৫০০পিচ ইয়াবা ও ২০ লিটার সোলাইমদ উদ্ধার করা হয়েছে। সন্ত্রাসী আব্দুল মালেক হোয়ানক ইউনিয়নের পানিরছড়া এলাকার মৃত বশির আহমদের পুত্র।

থানা সুত্রে পাওয়া তথ্যমতে, ১৩ আগস্ট সকাল সাড়ে ১১টার দিকে শাপলাপুর ইউনিয়নের দিনেশপুর এলাকাস্থ গভীর পাহাড়ে দু’সন্ত্রাসী বাহিনীর মধ্যে বন্দুকযুদ্ধ হয়।এসময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছালে সন্ত্রাসীরা পুলিশের উপস্থিতি টেরপেয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে পালিয়ে যায়। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় আব্দুল মালেক মাটিতে পড়ে থাকলে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে দ্রুত মহেশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসকেরা তাকে মৃত ঘোষনা করে। 

প্রেস ব্রিফিংয়ে মহেশখালী থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ জানান, দু’সন্ত্রাসী বাহিনীর বন্দুকযুদ্ধের সংবাদ পেয়ে থানার তদন্ত ওসি শফিকুল আলম চৌধুরীর নেতৃত্বে এসআই দিপক, এসআই রাম, এসআই মাহমুদ, এসআই সাগর, এএসআই সনজিব সহ একদল পুলিশ ফোর্স এ অভিযান চালায়। ঘটনাস্থলে পৌছাঁ মাত্রই সন্ত্রাসীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে অন্যান্য সন্ত্রাসীরা পালিয়ে গেলেও আব্দুল মালেক নামের এক সন্ত্রাসী রক্তাক্ত অবস্থায় মাঠিতে পড়ে থাকে।  তখন তার কাছে ৫টি দেশীয় তৈরী অস্ত্র, ৫০০ পিচ ইয়াবা ও ২০ লিটার সোলাইমদ প্ওায়া গেছে।

তিনি আরও জানান,আব্দুল মালেক একজন চিহ্নিত সন্ত্রাসী তার বিরোদ্ধে অসংখ্য মামলা রয়েছে। মামলাগুলো হচ্ছে জিআর-২০, জিআর-৪৫/০৫, জিআর-৩১৬/১৬, জিআর-৬, জিআর-১৩, জিআর-৯৬/০৫, জিআর-৯২/১৬ ও চট্রগ্রাম লোহাগাড়া থানায়-৯(৭)১৬ মামলা রয়েছে।

নি এম/চঞ্চল