eibela24.com
বুধবার, ১৪, নভেম্বর, ২০১৮
 

 
জেনে নিন ভক্ত প্রহ্লাদের মহান গুণাবলী 
আপডেট: ০৪:২২ pm ১৫-০৮-২০১৮
 
 


হিরণ্যকশিপুর চার সুযোগ্য পুত্রের মধো প্রহ্লাদ ছিল সর্বশ্রেষ্ঠ। সমস্ত দিব্য গুণ তাঁর মধো ছিল কারণ তিনি ছিলেন ভগবানের অনন্যভক্ত।

প্রহ্লাদের গুণাবলী 

(১) ব্রাহ্মণ গুণ সম্পন্ন --- শম (মন সংযম ), দম (দশ ইন্দ্রিয়কে সর্বতোভাবে সংযতকরণ), সরলতা, জ্ঞান, বিজ্ঞান, ও আস্তিক্য এ সবই তাঁর মধ্যে ছিল।

(২) সৎ চরিত্র: তাঁর আচরণে কোনও দোষ পাওয়া যেত না।

(৩) তিনি পরম সত্যকে জানতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। পরমসত্য পরমেশ্বর ভগবানকে তিনি সর্বদা দর্শনের যত্ন করতেন।

(৪) সম্মানিত ব্যক্তিদের কাছে তিনি কৃত্যের মতো আচরণ করতেন, দরিদ্রদের প্রতি পিতার মতো বাৎসল্য প্রকাশ করতেন। সমান ব্যক্তিদের প্রতি ভায়ের মতো অনুরক্ত ছিলেন।গুরু ও জ্যেষ্ঠ গুরুভাইদের প্রতি ঈশ্বর তুল্য সম্মান করতেন।

(৫) বিদ্যা, ঐশ্বর্য, সৌন্দর্য ও আভিজাত্য জনিত গর্ব থেকে প্রহ্লাদ সম্পূর্ণরুপে মুক্ত ছিলেন।

(৬) অসুর পরিবারে জন্ম নিয়েও আসুরিক না হয়ে শ্রীকৃষ্ণের পরম ভক্ত ছিলেন।

(৭) চরম বিপদেও তিনি উদ্বিগ্ন হতেন না।

(৮) প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে বৈদিক সকাম কর্মে তিনি আগ্রহী বাসনা থেকে সম্পূর্ণ মুক্ত ছিলেন।

(৯) শৈশব থেকে শিশুসুলভ খেলাধুলার সামগ্রীর প্রতি উদাসীন ছিলেন। কেবল কৃষ্ণভাবনায় মগ্ন থাকতেন।

(১০) সমস্ত জড়বস্তকে তিনি অর্থহীন মনে করতেন, তাই সমস্ত কামনা বাসনা থেকে সম্পূর্ণমুক্ত ছিলেন প্রহ্লাদ।

(১১) কৃষ্ণপ্রেমে বিহূল চিত্তে তিনি কখনও কাঁদতেন, কখনও হাসতেন, কখনও আনন্দ প্রকাশ করতেন, কখনও উচ্চস্বরে কীর্তন করতেন, কখনও ভগবানকে দর্শন করে পূর্ণ উৎকণ্ঠার বশে উচ্চস্বরে তাঁকে ডাকতেন, কখনও আনন্দে নৃত্য করতেন, কখনও কৃষ্ণভাবনায় তন্ময় হয়ে ভগবানের লীলার অনুকরন করতেন।

নি এম/