eibela24.com
বুধবার, ২৬, সেপ্টেম্বর, ২০১৮
 

 
ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সাংবাধিক সুমন চক্রবর্তীর উপর বর্বরোচিত হামলা
আপডেট: ১০:৩৮ am ১২-০৯-২০১৮
 
 


ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় অনলাইন টিভি চ্যানেল ‘পথিকটিভির’ ক্যামেরাপার্সন সুমন চক্রবর্তীর উপর বর্বরোচিত হামলা চালিয়ে গুরুতর জখম করেছেন সন্ত্রাসীরা। তাঁর অবস্থা সংকটাপন্ন!

গত সোমবার (৯ সেপ্টেম্বর) রাত নয়টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সমবায় মাকের্টের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

আশংকাজন অবস্থায় তাকে প্রথমে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরবর্তীতে তার অবস্থার অবনতি হলে কতর্বরত চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন।

মোঃ রাসেল মিয়া নামক এক প্রত্যক্ষদরশী জানান, পৌর মুক্তমঞ্চের পাশে কয়েকজন যুবক বসে ছিল এমতাবস্থায় সুমন চক্রবর্তী তাদের পাশ দিয়ে হেটে যেতে থাকলে পেছন থেকে পূর্ব থেকে বসে থাকা যুবকদের একজন তাকে তার নাম ধরে ডেকে দাড় করিয়ে আলাপচারীতা শুরু করেন এবং এক পর্যায়ে সন্ত্রাসীরা দেশীয় তৈরি ধারালো অস্ত্র দিয়ে সুমনকে এলোপাতারি কুপাতে শুরু করলে মারাত্মক রক্তাক্ত অবস্থায় সুমন মাটিতে লুটিয়ে পরলে সন্ত্রাসীরা দ্রুত চলে যান। তখন ওখানকার বেশ কয়েক মিলে তাকে মারাত্মক রক্তাক্ত অবস্থায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর হাসপতালে নিয়ে যায়।

এ বিষয়ে সুমন চক্রবর্তীর স্ত্রী বলেন, আমার স্বামীকে মেরেছে মধ্যপাড়া ইদন মিয়ার ছেলে বাদল ও তার সহযোগী সন্ত্রাসীরা, তারা প্রায় সময় আমার স্বামীর কাছে বিভিন্ন অজুহাতে চাঁদা দাবি করতো। ঐদিনই আমার স্বামীর নিকট সন্ধ্যার দিকে তারা চাঁদা দাবী করেন এবং টাকা না দিলে রাত্রের মধ্যেই তাকে সাইজ করবে বলে হুমকি দিয়ে চলে যান।

এরই ধারাবাহিকতায় সন্ত্রাসীরা আমার স্বামীকে পথিকটিভির অফিস থেকে ফেরার পথে তারা এভাবে গুরুতর আহত করে জোরপূর্বক স্যামসাং একটি মোবাইল ও ডিএসএল আর সনি ক্যামেরাটি নিয়ে নিয়ে যান। আমরা তার বিচার চাই।

এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়েছে।

নি এম/