eibela24.com
শুক্রবার, ৩০, অক্টোবর, ২০২০
 

 
রামেক হাসপাতাল
চিকিৎসক লাঞ্ছিত ও ভাংচুরের ঘটনায় ইন্টার্নিদের কর্মবিরতি, দুর্ভোগে রোগীরা
আপডেট: ১২:৪৯ am ১৭-০৪-২০১৬
 
 


রাজশাহী প্রতিনিধি : রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে পাঁচ দফা দাবিতে ইন্টার্নি চিকিৎসকদের কর্মবিরতী অব্যাহত রয়েছে। চিকিৎসকদের মারধর ও হাসপাতালে ভাংচুরের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শনিবার সন্ধ্যায় হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এএফএম রফিকুল হক বাদি হয়ে রাজপাড়া থানায় মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় ৬/৭ জনকে অজ্ঞত আসামী করা হয়েছে বলে জানান রাজপাড়া থানার ওসি মাহমুদুর রহমান। শুক্রবার দুপুরে হাসপাতালে রোগীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে স্বজনদের সঙ্গে ইন্টার্নি চিকিৎসকদের হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এর প্রতিবাদে ইন্টার্নি চিকিৎসকরা বিক্ষোভ করে জরুরী বিভাগে ভাংচুর চালায়। এসময় পুলিশ লাঠিচার্জ করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। পরে তারা ৫ দফা দাবি তুলে কর্মবিতরী শুরু করে। অব্যাহত কর্মবিরতিতে রোগিদের দুর্ভোগ বেড়ে গেছে।

ইন্টার্নি চিকিৎসক পরিষদের আহ্বায়ক হৃদয় জানান, তাদের দাবি-দাওয়া নিয়ে হাসপাতাল পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এএফএম রফিকুল হকের সঙ্গে শনিবার দুপুরে বৈঠক হয়েছে। সে বৈঠককে তারা আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের পাঁচ দফা দাবি তুলে ধরা হয়েছে। তাদের দাবি পুরণ হওয়ার প্রক্রিয়া শুরু না হওয়া পর্যন্ত তারা কাজে ফিরবেন না বলে জানান হৃদয়।

হাসপাতাল পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এএফএম রফিকুল হক বলেন, ইন্টার্নি চিকিৎসকরা এখনো কাজে ফেরেন নি। তারা পাঁচ দফা দাবি তুলে ধরেছেন। সেই দাবিগুলো পুরণের জন্য কাজ করা হচ্ছে। তিনি বলেন, হাসপাতালের ওয়ার্ডগুলোতে ইন্টার্নি চিকিৎসক না থাকলেও জরুরি বিভাগ ও অপারেশনের কাজে ইন্টার্নি চিকিৎসকরা অংশ নিচ্ছেন। ভর্তি রোগীদের কোনো ধরনের অসুবিধা যাতে না হয় সে বিষয়ে রামেক হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বলেও জানান তিনি।

এইবেলাডটকম/অরুন/এএস