eibela24.com
শুক্রবার, ১৬, নভেম্বর, ২০১৮
 

 
বাকেরগঞ্জের আয়রন ব্রীজের আবারও বেহাল দশা
আপডেট: ০৮:১০ pm ২৮-১০-২০১৬
 
 


বাকেরগঞ্জ প্রতিনিধিঃ বাকেরগঞ্জের শ্রীমন্ত নদীর আয়রন ব্রীজের আবারও বেহাল দশা,যে কোন মুহুর্তে বড় ধরনের দূর্ঘটনা ঘটতে পারে। কর্তৃপক্ষের উদসীনতায় এ যেন অভিভাবকহীন একটি সম্পদ,যার দেখাশুনা করার কেহ নেই।

সপ্তাহে জ্জ বার ভেঙ্গে পরে বন্ধ তাকে দুর পাল্লার গাড়ী চলাচল ঝাঁলাই আর পট্টি মেরে চলার শক্তিও হারিয়ে ফেলে বর্তমানে ব্রীজটি মরণ ফাঁদে পরিনত হয়েছে। তিন চাকার যানবাহনতো দুরের কথা যাত্রীবাহী বাসও চলাচল বন্ধ প্রায়। সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, আয়রন সেতুটি কয়েকটি পার্টে বিভক্ত করা।

মূল পাটাতন (প্লেট) নষ্ট হয়ে যাওয়ায় পুরোটাই লোহার রড,পাতি ও পরিত্যাক্ত প্লেট দিয়ে ঝালাই আর পট্টি মেরে চলছে কোন রকম। যার ভার বহন ক্ষমতা অত্যান্ত রুগ্ন প্রায় সময় দেখা যায়,মালবাহী যানবহন, মোটর সাইকেল, ভ্যান ও সাধারণ মানুষ গর্তে পড়ে আহত ও রক্তাক্ত জখম হয়। জনগুরুত্বপূর্ণ এই ব্রীজটি বাকেরগঞ্জ বাসীর জন্য এখন যেন মরন ফাঁদ হয়ে দাড়িয়েছে।

সন্ধ্যার পরে বৈদ্যুতিক কোন লাইটের ব্যবস্থা না থাকায় সাধারণ মানুষের পায়ে হেটে চলাটা অত্যান্ত বিপদজনক হয়ে দাড়িয়েছে। প্রায় সময় দেখা যায় রাতের বেলা পথচারীরা দুমড়ে-মুচড়ে ও ভেঙ্গে-চুরে গর্ত হয়ে যাওয়া পে¬টের ভেতরে পা ঢুকে রক্তাক্ত জখম হয়।

উক্ত ব্রীজের উপর দিয়ে বরিশাল টু পটুয়াখালী যাত্রীবাহী বাসও আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৮টায় থেকে ব্রীজ বিনষ্টের কারণে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।

ব্রীজের উপর দিয়ে ৫ টন লেখা মাল বাহী ট্রাকে ২৫/৩০ টন মালামাল বহন করায় দ্রুত এমন ক্ষতি হয়েছে বলে প্রত্যক্ষদর্শী ও বিশেষজ্ঞ মহলের অভিমত। কোন বাস, ট্রাক বা ভারী কোন যান বাহন চলাচল করার সময় ব্রীজ তলমল করে দুলতে থাকে।

কারণ ব্রীজের বহু নাট-বোল্ট নড়বড়ে হয়ে গেছে। বাকেরগঞ্জবাসী উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপে সংশি¬ষ্ট দপ্তরের মাধ্যমে উক্ত জনগুরুত্বপূর্ণ ব্রীজটি নতুন করে মাত্র একটি পাটের অংশ ঢালাই ব্রীজ নির্মাণ করে মরণ ফাঁদ থেকে রেহাই পাওয়ার জোর দাবী জানিয়েছেনে।

 

এইবেলাডটকম/জাকির/গোপাল