eibela24.com
সোমবার, ২৪, সেপ্টেম্বর, ২০১৮
 

 
কৃষ্ণ সারথীর পাঁচটি কবিতা
আপডেট: ০৩:৩৮ pm ১৫-০১-২০১৭
 
 


একটু অন্ধকার দাও

হয়তো চোখ বন্ধ করে বুঝেছি, পথটি আমার চিরচেনা।
চোখ খুলে বুঝতে পারি না, আদৌ এই পথে হেঁটেছি কিনা?
পথের ধুলায় তোমার পদরেখা, বাতাসে শরীরের ঘ্রাণ।
এখনো উড়ছে শাড়ির আঁচল, চলে গেছে পথের সীমানায়।
এই পথই আমায় টেনে নিয়ে যায়, অথচ আমিই পথ খুঁজি,
পথের শুরুতেই চোখ বুজে আছি, আমায় একটু অন্ধকার দাও।

****

নীরবতা

রাত্রির সবটুকু ঘুম তোমায় দিলাম,
আমি কোলাহলটুকু বুক পকেটে
নিয়ে পায়চারি করি বারান্দায়।
সবটুকু উষ্ণতা ছুঁয়ে যাক তোমার শরীর,
আমি শীতলতা পুষে রাখি হাতের মুঠোয়।
সবটুকু নীরবতা তোমার শিয়রে রেখে-
আমি চিৎকার করি অন্তহীন সৈকতে।

****

পাগলি

পাগলি সবার জন্য নয়-
সে একজনের জন্যই পাগল।
পাগলিকে ভালোবাসার কথা বলতে নেই-
সে সবাইকে বলে দেয়।
পাগলি তোর জন্য সবটুকু ভালোবাসা...
তুই আমার জন্যই পাগলি হয়ে থাক।

****

পিঁপড়ার ইতিহাস

রাত জেগে জেগে পিঁপড়ার ইতিহাস পড়ি,
সারিবদ্ধ পিঁপড়ার গন্তব্যযাত্রা দেখি-
দেখি এক টুকরো খাদ্যবস্তুর সমবণ্টন;
কী সাবলীল পথিকৃতের অনুসরণ।

আমিও পিঁপড়াবদ্ধ হতে চাই-
একতা আর সমবণ্টনের জন্য
পৃথিবীটা হোক পিঁপড়াময়।

****

পথ নেই মত নেই

অসংখ্য মিথ্যার ভিড়ে সত্যরা এগোবার পথ খুঁজে পায় না,
পথজুড়ে বিস্তার করে আছে মিথ্যাবাদীর দল।
মোড়ে মোড়ে চাটুকার তেলবাজ পিচ্ছিল করে আছে লোকালয়।
পথ নেই মত নেই- পথের শেষ নেই- মতের রেশ নেই,
জগতে মানুষের বদলে আছে কতগুলো সুবিধার পূজারী।

 

এইবেলাডটকম/এফএআর