eibela24.com
মঙ্গলবার, ২৫, সেপ্টেম্বর, ২০১৮
 

 
রাজাপুরে ছেলে হত্যার বিচার চেয়ে মুক্তিযোদ্ধার জীবন হুমকিতে!
আপডেট: ০৬:০৫ pm ২১-০৫-২০১৭
 
 


রাজাপুর প্রতিনিধি : ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার সাতুরিয়া গ্রামে প্রকাশ্যে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছিল এসএসসি পরীক্ষার্থী মো. সোহেল (১৭) কে। ঘটনার চার বছর পেড়িয়ে গেলেও আজো ছেলে হত্যার বিচার পায়নি সাবেক সেনা সদস্য ও মুক্তিযোদ্ধা ফারুক হোসেনের পরিবার।

আসামীরা প্রভাবশালী হওয়ায় উল্টো নিজেই প্রান ভয়ে এখন পালিয়ে বেড়াচ্ছেন তিনি। মুক্তিযোদ্ধা ফারুক হোসেন অভিযোগ করেন, পুত্র হত্যার বিচার চেয়ে এই মুক্তিযোদ্ধা পরিবারটি বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়েও কোন প্রতিকার পায়নি। ২০১৩ সালের ১১ মে সাতুরিয়া এলাকার স্থানীয় কিছু সন্ত্রাসী প্রকাশ্যে পিটিয়ে হত্যা করে সোহেলকে। এ ঘটনার চার দিন পর নিহত সোহেলের বাবা বাদী হয়ে ১২ জনের নাম উল্লেখ করে থানায় হত্যা মামলা করেন।

দুই বছর পর ২০১৫ সালের ৩১ এপ্রিল আদালতে এজাহারভুক্ত ২জন আসামীকে বাদ দিয়ে ১০ জনের বিরুদ্ধে চুড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করে পুলিশ। মুক্তিযোদ্ধা ফারুক হোসেন আরো জানান, এই মামলায় ১৮ জনকে স্বাক্ষী করা হয়েছে। গত দুই বছর যাবত এই ১৮জন স্বাক্ষীকে নিয়ে স্বাক্ষগ্রহনের জন্য বহুবার তারিখ অনুযাই আদালতে গেলেও বিভিন্ন অযুহাতে স্বাক্ষীদের বয়ান নেয়া হয়নি।

বর্তমানে মামলার সব আসামী উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়ে মামলা তুলে নিয়ে সমঝোতা করার জন্য বিভিন্ন ভাবে চাপ সৃষ্টি করছে বলেও জানান মুক্তিযোদ্ধা ফারুক হোসেন। তিনি আরো বলেন, এ সরকারের আমলে একজন মুক্তিযোদ্ধা যদি ছেলে হত্যার বিচার না পায় তবে আর কবে বিচার পাবে, মামলা চালাতে গিয়ে এখন পথের ফকির হয়ে গেছি।