eibela24.com
সোমবার, ২৪, সেপ্টেম্বর, ২০১৮
 

 
নীলফামারী জেলা আওয়ামীলীগ নেতার পদত্যাগের ঘোষণা
আপডেট: ০৪:১২ pm ১২-০৬-২০১৭
 
 


নীলফামারী প্রতিনিধি: স্বাধীনতাবিরোধী হিসেবে ফেসবুকে প্রচারণা চালানো ইউনিয়ন যুবলীগের প্রাক্তন নেতার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় দল থেকে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন নীলফামারী জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামন্ডলী ও সদর উপজেলা কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম শাহ।

রোববার রাতে টুপামারী ইউনিয়নের টুপামারী বাজার এলাকায় অবস্থিত নিজ বাড়িতে সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন ইউনিয়নের প্রাক্তন চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম।


তিনি উল্লেখ করেন, আমি স্বাধীনতা উত্তর ইউনিয়ন কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে জেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছি।

আমার অবদান রয়েছে ১৯৫২ সালের মহান ভাষা আন্দোলনেও। টুপামারী ইউনিয়নে আমার আগে কেউ আওয়ামী লীগে আসেনি অথচ ফেসবুকে আমাকে স্বাধীনতাবিরোধী আখ্যা দিয়ে পিস কমিটির সদস্য হিসেবে প্রচারণা চালানো হলো।’


তিনি অভিযোগ করেন, অপপ্রচার চালানো ইউনিয়ন যুবলীগের বিলুপ্ত কমিটির আহ্বায়ক মশিউর রহমান রতনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণে উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতাদের দ্বারস্থ হলাম।

কিন্তু তারা কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ করলো না। আমার চাওয়া-পাওয়ার কিছু নেই। কার কাছে বিচার চাইব। আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক। এ সময় দলীয় গঠনতন্ত্র প্রদর্শন করে দল থেকে পদত্যাগের ঘোষণা দেন তিনি।


সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত থাকা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) পরেশ চন্দ্র সরকার বলেন, ওই ছেলে রতন (বিলুপ্ত কমিটির আহ্বায়ক) আমাকেও লাঞ্ছিত করেছিল। কোনো সুরাহা হয়নি। দলের ঊর্ধ্বতন নেতাদের শেল্টারের কারণে সে অপদস্থ করছে আমাদের।


সংবাদ সম্মেলনে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক মোকছেদ আলী, রামগঞ্জ ট্র্যাজেডিতে হত্যাকান্ডের শিকার ফরহাদ হোসেন ও মুরাদ হোসেনের বাবা ফারুক হক বক্তব্য দেন।


এদিকে ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণে ফেসবুকে বাবার বিরুদ্ধে মিথ্যা প্রচারণা ও অপমানজনক পোস্ট দেওয়ায় ছেলে এবং সদর উপজেলা যুবলীগের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আবুল কাশেম শাহ নীলফামারী থানায় তথ্য প্রযুক্তি আইনে একটি অভিযোগ দিয়েছেন।


নীলফামারী সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাবুল আখতার জানান, আবুল কাশেম ও মশিউর রহমান রতন পাল্টাপাল্টি অভিযোগ দিয়েছেন। দুটোই যাচাই-বাছাই করে দেখা হচ্ছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান ওসি।

 

  এইবেলাডটকম/মোমেন/পিসিএস