eibela24.com
সোমবার, ১০, ডিসেম্বর, ২০১৮
 

 
বরেন্দ্র জাদুঘরে নষ্ট হচ্ছে অমূল্য প্রত্নসম্পদ
আপডেট: ০৩:০৯ pm ২৩-০৮-২০১৭
 
 


বাংলাদেশের সব চেয়ে প্রাচীন প্রত্নসম্পদ সংগ্রহশালা রাজশাহীর বরেন্দ্র জাদুঘরে জায়গার অভাবে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে অমূল্য প্রত্নসম্পদ।

রাজশাহী শহরে অবস্থিত বরেন্দ্র জাদুঘর ঘুরে দেখা যায়, জাদুঘরের মাঝখানের উন্মুক্ত জায়গা ও বারান্দায় শত শত বছরের বিভিন্ন প্রস্তর মূর্তি, শিবলিঙ্গ ও অমূল্য প্রত্নসম্পদ রাখা হয়েছে। সেগুলো পানিতে ভিজে, রোদে পুড়ে ও ধুলার আস্তরণ পড়ে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। যে কোন সময়ে এসব অমূল্য প্রত্নসম্পদ চুরি হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। 

এছাড়া শত শত বছরের পুস্তিকা গবেষণার অভাবে বস্তাবন্দি করে রাখা হয়েছে বলে জানান বরেন্দ্র জাদুঘরের এক কর্মকর্তা। একই সঙ্গে তিনি এসব পুস্তিকার পাঠ উদ্ধার ও আমল ভাগ করার জোর দাবি জানান।

বাংলাদেশের সব চেয়ে প্রাচীন ও প্রথম প্রত্নতাত্ত্বিক এই জাদুঘর বাংলার ব-দ্বীপ অঞ্চলের প্রত্নতাত্ত্বিক কোষাগার হিসেবে পরিচিত। পাল ও সেন আমলের প্রতিমা ভাস্কর্যের জন্য জাদুঘরটির খ্যাতি সারা বিশ্বে। খ্রিস্টপূর্ব ২৫০০ অব্দ থেকে ১৯০০ খ্রিস্টাব্দ পর্যন্ত সময়কালের বহুবিধ প্রত্ননিদর্শন এ জাদুঘরে সংগৃহিত রয়েছে। প্রত্ন নিদর্শনগুলো প্রধানত প্রস্তর, স্বর্ণ, রৌপ্য, তাম্র, পিতল, ব্রোঞ্জ, লৌহ, কাষ্ঠ, মৃন্ময় ইত্যাদি দ্বারা নির্মিত।

জাদুঘরে মৌর্য, গুপ্ত, পাল, সেন, সুলতানি ও মুঘল আমলের অমূল্য সব প্রত্ন নিদর্শন রয়েছে। এগুলোর মধ্যে কিছু কিনে আনা হয়েছে, আবার অনেকে স্বেচ্ছায় দান করেছেন। ১৪টি গ্যালারিতে এগুলো সাজিয়ে রাখা হয়েছে। এখানে মহাস্থানগড়, পাহাড়পুর বৌদ্ধ বিহার, ময়নামতির অনেক অমূল্য প্রত্নসম্পদ সংগৃহীত রয়েছে।

জাদুঘরের বৌদ্ধ গ্যালারিতে পঞ্চম শতাব্দীর একটি বেলে পাথরের মূর্তি রয়েছে। এ ধরনের মূর্তি বাংলাদেশ চারটি রয়েছে। তার মধ্যে বরেন্দ্র জাদুঘরে দুটি। বাকি দু’টির একটি কুমিল্লা জাদুঘর ও অপরটি চট্টগ্রাম জাদুঘরে রয়েছে। এখানে ৩য় ও ৫ম শতাব্দীর হিন্দু দেব-দেবীর মূর্তি রয়েছে।

জাদুঘরে বিভিন্ন যুগের প্রায় ৬ হাজার মুদ্রা রয়েছে। স্বর্ণমুদ্রা রয়েছে ৩৮টি। মুদ্রাগুলোর মধ্যে সব চেয়ে প্রাচীন স্বর্ণমুদ্রাটি মৌর্য আমলের। জাদুঘরের অন্যতম আকষর্ণীয় এক প্রত্নবস্তু হল চার হাজার বছর আগের।

আরডি/