eibela24.com
বুধবার, ১৪, নভেম্বর, ২০১৮
 

 
পদ্মা সেতুর মোট ব্যয় ৩০ হাজার কোটি টাকা ছাড়াচ্ছে
আপডেট: ০৭:০২ pm ১২-০৯-২০১৭
 
 


পদ্মার সেতুর কাজ এগিয়ে চলছে পুরো দমে। সেই সঙ্গে কয়েক দফায় বাড়ানো হয়েছে এর ব্যয়। তৃতীয় দফায় আরও ১ হাজার ৪শ কোটি টাকা বাড়ানো হচ্ছে স্বপ্নের এ সেতুর নির্মাণ ব্যয়। এ দফায় ব্যয় বাড়ার ফলে পদ্মা সেতুর ব্যয় দাঁড়াবে সব মিলিয়ে ৩০ হাজার ১৯৩ কোটি ৩৮ লাখ টাকা।

সর্বশেষ পদ্মাসেতু প্রকল্পের মূল ব্যয় ছিলো ২৮ হাজার ৭৯৩ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। প্রকল্পের মূল ডিপিপি’র (উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাবনার) থেকে ভূমি অধিগ্রহণ বাবদ অতিরিক্ত এ ব্যয় বাড়ছে।

মঙ্গলবার সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সেতু বিভাগ সূত্র এমন তথ্য নিশ্চিত করেছে।

সেতু বিভাগ আরও জানায়, মূল ডিপিপি’তে ১ হাজার ৫৩০ হেক্টর ভূমি অধিগ্রহণের জন্য ব্যয় প্রাক্কলত ছিলো ১ হাজার ২৯৯ কোটি টাকা। কিন্তু এখন মোট ভূমিঅধিগ্রহণ করতে হবে ২ হাজার ৬৯৮ হেক্টর। অতিরিক্ত জমি বাবদ মোট ব্যয় প্রয়োজন ২ হাজার ৬৯৯ কোটি টাকা। পদ্মাসেতু প্রকল্পে ভূমিসহ অধিগ্রহণ বাবদ আরও এক হাজার ৪০০ কোটি টাকা প্রয়োজন। ভূমি অধিগ্রহণের প্রভাবে নতুনভাবে পদ্মাসেতু প্রকল্পের মোট ব্যয় বাড়ছে বলে জানায় সেতু বিভাগ।

সেতু বিভাগ সূত্র জানায়, ভূমি অধিগ্রহণ খাতের জমির পরিমাণ ও ব্যয় পরিবর্তনের কারণে অনুমোদিত ডিপিপি থেকে পদ্মাসেতু প্রকল্পের মোট ব্যয় ৪ দশমিক ৮৬ শতাংশ বাড়ছে।

নতুন করে ব্যয় বৃদ্ধি প্রসঙ্গে পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের পরিচালক শফিকুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, মূল ডিপিপি’র তুলনায় পদ্মাসেতু প্রকল্পে আমাদের আরও ১ হাজার ৪০০ কোটি টাকা প্রয়োজন। ফলে পদ্মাসেতুর যে মোট ব্যয় ২৮ হাজার ৭৯৩ কোটি টাকা নির্ধারণ করা হয়েছিলো, এটা আর থাকছে না। মোট ব্যয়ের ক্ষেত্রে আবারও পরিবর্তন করতে হবে। কারণ নতুন করে ভূমি আমাদের লাগবে, এটা ছাড়া প্রয়োজনীয় কাজ হবে না। এই প্রস্তাবনা আমরা পরিকল্পনা কমিশনেও পাঠিয়েছি।

আরডি/